Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

গতি, সেবা, ত্যাগ আমাদের মূলমন্ত্র, দূর্যোগ মোকাবেলায় আমরা দূঢ় প্রতিজ্ঞ।

 

সেবাসমূহ: অন্যান্য সংস্থার সাথে সমন্বয় সাধন করে অগ্নি দূর্ঘটনাসহ যেকোন দূর্যোগে জানমালের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনা্, দূর্ঘটনায় আহতদের প্রাথমিক চিকি‘সা প্রদান, রোগী পরিবহনে এ্যাম্বুলেন্স সহায়তা প্রদান, বহুতল/বানিজ্যিক ভবন, শিল্প কারখানায় অগ্নি দূর্ঘটনা রোধকল্পে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ, পরামর্শ ও মহড়া পরিচালনা এবং বেসামরিক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণ।

 

অত্র বিভাগের প্রধান কাজ: উল্লেখিত উদ্দেশ্য সাধনে নিম্ন বর্ণিত প্রধান কার্যাদির মাধ্যমে এ বিভাগের কর্মীরা তাদের দায় দায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালন করে থাকেন।

ক। অগ্নি নির্বাপন, খ। দূর্ঘটনাস্থলে চাপা পড়া/আটকে পড়া লোকের উদ্ধার, গ। প্রাথমিক শুশ্রুষা ও আহতকে হাসপতালে স্থানান্তর করণ।

 

অত্র অফিসের সেবা সমূহ:

যেকোন দূর্যোগ যেমন, অগ্নিকান্ড, সড়ক দূর্ঘটনা, নৌপথে দূর্ঘটনা, ভূমিকম্প সহ প্রত্যেকটি দূর্যোগে আখাউড়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর সেবা পেতে এই নম্বরে যোগাযোগ করুন ক. 01730002483 এবং 0852256016 এবং সারা বাংলাদেশ ব্যাপি যেকোন সেবার জন্য 029555555 ও গ্রামীণ ফোন হটলাইন 102 এ ফোন করে যেকোন সেবা গ্রহণ করুন।

 

অগ্নি দূর্ঘটনা, উদ্ধার ও আহত সেবা:

১। দূর্ঘটনার সাথে সাথে নিকটস্থ ফায়ার ষ্টেশন বা কেন্দ্রিয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দূর্ঘটনার সংবাদ প্রদান করতে হবে।

২। সংবাদ প্রাপ্তির সাথে সাথে ফায়ার কর্মীগণ সাজ সরঞ্জামাদি সহ দূর্ঘটনাস্থলে গমন করেন।

৩। যেকোন দূর্যোগে 102 হটলাইন, গ্রামীণ, বাংলালিংক, ও এয়ারটেল এ কল করলেই সেবা পাওয়া যাবে।

 

ফায়ার লাইসেন্স (অগ্নি দূর্ঘটনা প্রতিরোধ মূলক পরামর্শ সেবা):

১। স্থানীয় সহকারী পরিচালক/ উপপরিচালক বরাবর ফায়ার সার্ভিসের নির্ধারিত ফরম পূরণ পূর্বক নিম্নবর্ণিত কাগজপত্র সহ আবেদন করতে হবে।

ক) ট্রেড লাইসেন্স, খ) প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ভবনে ব্যবসা পরিচালনা হলে, পৌরসভা কর্তৃক প্রতিষ্ঠানের স্থাবর/অস্থাবর সম্পত্তির বার্ষিক মূল্যায়ণপত্র

গ) ভাড়া বাড়িতে ব্যবসা হলে ভাড়ার চুক্তিপত্র

ঘ) রাজউক/পৌরসভা কর্তৃক অনুমোদিত হলে

চ) প্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত স্থানীয় জন প্রতিনিধি কর্তৃক অনাপত্তি পত্র সনদ

ছ) বহুতল বা বানিজ্যিক ভবন হলে ফায়ার সার্ভিসের ছাড়পত্র।

জ) গার্মেন্টস প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ফায়ার সার্ভিস নির্ধারিত তথ্য বিবরণী।

ঝ) অগ্নি নির্বাপন ও প্রতিরোধ আইন ২০০৩ এর ৪ ধারা বিধি মোতাবেক উপরোক্ত শর্ত সাপেক্ষে েএবং নির্ধারিত ফি সাপেক্ষে নির্ধারিত ফরমে নির্ধারিত পদ্ধতিতে লাইসেন্স প্রদান করা হয়।

 

বহুতল বানিজ্যিক ভবনের ছাড়পত্র:

১) অগ্নি প্রতিরোধ নির্বাপন আইন ২০০৩ এর ৭ নং ধারা অনুসারে অনুর্ধ ৭ তলা ভবনের বা বানিজ্যিক ভবনের অগ্নি প্রতিরোধমূলক ছাড়পত্র প্রদান করা হয়।

২) স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বা সরাসরি মাহপরিচালক বরাবর সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান আবেদন করবেন।

৩) আবেদনের সাথে ভবনের নকশা ও দলিল প্রদান করবেন।

৪) অত:পর অত্র অধিদপ্তরের মনোনীত পরিদর্শক 07(সাত) কর্মদিবসের মধ্যে সংশ্লিষ্ট ভবন পরিদর্শন করবেন।

৫) পরিদর্শনের পর অগ্নি প্রতিরোধ মূলক পরামর্শ প্রদান করা হয়।

৬) পরামর্শ মোতাবেক কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করলে শর্ত সাপেক্ষে পরবর্তী 07 (সাত) কর্মদিবসের মধ্যে ছাড়পত্র প্রদান করা হয়।

৭) পরিদর্শন যুক্তিসংগত  কারণে সন্তোষজনক না হলে ভবন ব্যবহারের অনুপযোগী মর্মে মহাপরিচালক ঘোসনা করতে পারেন।

৮) ভবন ব্যবহারের অনুপযোগী ঘোষনার কারণে কোন ব্যক্তি সংক্ষুব্দ হলে তিনি উক্ত রুপে ঘোষনার ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে সরকারের নিকট আবেদন করতে পারেন।

৯) উক্ত আপিল প্রাপ্তির ৬০ (ষাট) দিনের মধ্যে সরকার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন।

 

অগ্নি প্রতিরোধমূলক মহড়া, পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ সেবা:

১) উক্ত সেবা গ্রহণের জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বা সরাসরি মহাপরিচালক বরাবর আবেদন করতে হবে।

২) আবেদন প্রাপ্তির পর সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে অত্র অধিদপ্তর আর্থিক সংশ্লেষ ও অন্যান্য শর্তাবলী সহ প্যাকেজ প্রদান প্রেরণ করে।

৩) সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান উক্ত শর্ত পালনে সম্মত হলে অত্র অধিদপ্তরের মনোনীত কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সহিত প্রয়োজনীয় সমন্বয় সাধন পূর্বক নিম্নলিখিত সেবা প্রদান করে থাকে:

ক) অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপন বিষয়ে পরামর্শ প্রদান।

খ) অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপন বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান।

গ) অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপন বিষয়ে মহড়া পরিচালনা।

ঘ) ভূমিকম্পের পূর্বে, ভূমিকম্পের সময় এবং পরে করণীয় বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান।

 

 

অগ্নি-দুর্ঘটনা, উদ্ধার ও আহত সেবাঃ

১। দুর্ঘটনার সাথে সাথে নিকটস্থ ফায়ার স্টেশন বা কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দুর্ঘটনার সংবাদ প্রদান করতে হবে।

২। সংবাদ প্রাপ্তির সাথে সাথে ফায়ার কর্মীগণ সাজ-সরঞ্জামাদিসহ দুর্ঘটনাস্থলে গমন করেন।

৩। যেকোন দূর্যোগে ১৯৯ ডায়াল করলেই এ সেবা পাওয়া যায়। এছাড়া নিকটস্থ ফায়ার

স্টেশনের নম্বর সংগ্রহ করুন।

 

 

এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসঃ

১। অত্র অধিদপ্তর স্থানীয়ভাবে বা আন্তঃ জেলা পর্যায় রোগী পরিবহনের নিমিত্তে জনসাধারনের জন্য এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস প্রদান করে থাকে।

২। এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের আওতায় শুধুমাত্র রোগীকে বাসা থেকে হাসপাতালে অথবা দুর্ঘটনার স্থান থেকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

৩। এ সেবার জন্য স্থানীয় পর্যায়ে বা পৌর এলাকায় ফোনের বা বার্তাবাহকের মাধ্যমে এ্যাম্বুলেন্স কল গ্রহণ করা হয়।

৪। আন্তঃ জেলা পর্যায়ে বা দূরবর্তী কলের ক্ষেত্রে রোগী পরিবহনের জন্য নির্ধারিত ফরম পূরণ পূর্বক পূর্ব অনুমোদন নিতে হয়।